Header ad

এসি যেভাবে আপনার শরীরের ক্ষতি করছে!

ঘরের ভেতরের পরিবেশ শীতল রাখতে এয়ার কন্ডিশনার বা এসি ব্যবহারের পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। শীতকালে দরকার না পড়লেও বছরের অন্যান্য সময় এসি ছাড়া চলা মুশকিল। বিশেষ করে অফিসে কিংবা গাড়িতে এসি ছাড়া এক মুহূর্তও কাটানো সম্ভব নয়। কিন্তু জানেন কি এই এসিই হতে পারে আপনার অনেকগুলো শারীরিক অসুস্থতার কারণ?

রুক্ষ ত্বক ও চুল
তাপমাত্রার পরিবর্তনের কারণে আমাদের ত্বকের আর্দ্রতা কমে যায় এবং তা রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে পড়ে। এর প্রভাব পড়ে আমাদের চুলেও। ফুলে খুশকি, স্ক্যাল্পে চুলকানিসহ চুলেরও নানা সমস্যা দেখা দেয়। এর কারণ হচ্ছে এসির কারণে ঘরের ভেতর একরকম তাপমাত্রা, বাইরে আরেকরকম। আর এর সম্পূর্ণ প্রভাব পড়ে আমাদের ত্বক ও চুলে।

ডিহাইড্রেশন
অতিরিক্ত সময় এসির মধ্যে থাকলে তা অনেক সময় ডিহাইড্রেশনের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

সর্দি-কাশি
আপনার যদি ইতিমধ্যেই সর্দি-কাশি লেগে থাকে, তবে এসির কারণে তা আরো দীর্ঘায়িত হতে পারে। এসির ঠান্ডা বাতাস আমাদের শরীরের অভ্যান্তরে প্রবেশ করে সাধারণ অসুখগুলোকেও দীর্ঘ সময় ধরে ভালো হতে দেয় না।

অলস
শরীরের জন্য দরকার সতেজ বাতাস। শরীরে সঠিকভাবে বিপাকের জন্যও দরকার সতেজ আলো-বাতাস। কিন্তু এসির কৃত্রিম ঠান্ডা বাতাসে তা সম্ভব নয়। তাই যারা দীর্ঘ সময় এসির ভেতরে থাকেন তারা অনেকটাই অলস হয়ে পড়েন।

ড্রাই আই
অতিরিক্ত সময় এসির ভেতরে থাকার আরেকটি ফল হতে পারে ডাই আই বা চোখের শুষ্কতা। দীর্ঘ সময় কম্পিউটারের সামনে বসে থাকার কারণেও এটি হতে পারে।

মাথাব্যথা
যদি আপনি প্রায় প্রতিদিনই মাথাব্যথার সমস্যায় ভুগে থাকেন তবে সেজন্য এসিকে দায়ী করতে পারেন।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *