Header ad

রিজেন্ট এয়ারের সপ্তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী

ফাইল ছবি

বাংলাদেশের বেসরকারি শীর্ষস্থানীয় বিমান সংস্থা রিজেন্ট এয়ারের সপ্তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী অনুষ্ঠিত হয়ে গেল গত ১৮ নভেম্বর শনিবার। হোটেল রেডিসন ব্লুতে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পর্যটনমন্ত্রী জনাব রাশেদ খান মেনন এমপি এবং সংস্কৃতিমন্ত্রী জনাব আসাদুজ্জামান নূর এমপি।

বাংলাদেশের অভ্যন্তরীন বিমান যোগাযোগ ব্যাবস্থায় রিজেন্ট এয়ারের অবদানের কথা তুলে ধরে রাশেদ খান মেনন এমপি এই বিমান সংস্থাটির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শুভেচ্ছা জনাান। সংস্কৃতিমন্ত্রী জনাব আসাদুজ্জামান নূর এমপি তার বক্তব্যে রিজেন্ট এয়ারের উজ্জল ভবিষ্যৎ কামনা করেন। এছাড়া সুচনা বক্তব্যে রিজেন্ট এয়ারের সিইও লে. জে. এম ফজলে আকবর যাত্রীসেবা ও রিজেন্ট এয়ারের ভবিষ্যৎ কর্মপরিকলাপনা তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানে রিজেন্ট এয়ারের চেয়ারম্যান ইয়াসিন আলী ও এডি মাশরুফ হাবিব ছাড়াও রিজেন্ট এয়ারের সর্বস্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত ২০১০ সালে এইচজি এভিয়েশন ‌‘রিজেট এয়ার ব্র্যান্ড’ নাম নিয়ে আকাশে ডানা মেলে হাবিব গ্রুপের এই বিমান সংস্থাটি। প্রতিষ্ঠার প্রথম বছরেই ‘বেস্ট এয়ার লাইন অব দ্যা ইয়ার’ খেতাবটি নিজেদের করে নেয় রিজেন্ট। একবছর পরেই দেশের সীমানা পেরিয়ে আর্ন্তজাতিক রুটে নাম লেখায় রিজেন্ট।

২টি ড্যাশ-৮ কিউ বিমান দিয়ে যাত্রা শুরু করা রিজেন্ট এয়ারের বহরে এখন যুক্ত হয়েছে আরো ছয়টি বোয়িং ৭৩৭ সুপরিসর বিমান যা ব্যাবহৃত হচ্ছে ৭টি আন্তর্জাতিক এবং ২টি অভ্যন্তরীণ রুটে যাত্রী পরিবহনে।

এদিকে সপ্তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে ১২-৩০ নভেম্বরের মধ্যে টিকেট কেটে ১৫ জানুয়ারি থেকে ১৫ জুন ভ্রমণের জন্য ৭টি আর্ন্তজাতিক এবং ২টি অভ্যন্তরীন রুটে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় ঘোষণা করেছে রিজেন্ট এয়ার। বর্ষপূর্তির ছাড়ের পর সব ট্যাক্সসহ ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে ব্যাংকক যাওয়া-আসা ১৫ হাজার ৯৯৯ টাকা, কলকাতা ৮ হাজার ৪৯৯, মাসকাট ২২ হাজার ৪৯৯ এবং দোহা ২৬ হাজার ৪৯৯ টাকা।

অন্যদিকে ঢাকা থেকে কুয়ালালামপুর যাওয়া-আসা ১৭ হাজার ৯৯৯ টাকা, সিঙ্গাপুর ১৭ হাজার ৯৯৯, কাঠমান্ডু ১৩ হাজার ৯৯৯ এবং অভ্যন্তরীন রুট চট্টগ্রাম ৪ হাজার ৫০০ এবং কক্সবাজার ৬ হাজার ৪৯৯ টাকা করা হয়েছে। নির্ধারিত সময়ে টিকিট কেটে যাত্রীর পছন্দের সময়ে ভ্রমণ করতে পারবেন।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *