স্বামী হিসেবে কেমন হবেন আপনার প্রেমিক?

প্রেমে পড়তে কারণ লাগে না। প্রেম হতে পারে যখন তখন। হঠাৎ পরিচয়, ভালোলাগা, ভালোবাসা। তারপর দুটি মন স্বপ্ন দেখে হাতে হাত রেখে জীবন পাড়ি দেয়ার। প্রেমে পড়লে মন উড়ুউড়ু, জীবনের জটিল হিসাব-নিকাশ করার সময় তখন কোথায়! একজন ভালো প্রেমিক একজন ভালো স্বামী নাও হতে পারেন! কারণ বিয়ের পর জীবনে আসে নানা পরিবর্তন। মুখোমুখি হতে হয় অনেক চ্যালেঞ্জের। যদি সত্যিই চান মনের মানুষটি সঙ্গী হয়ে সারা জীবন পাশে থাকুক তবে কিছু বিষয়ের দিকে এখনই নজর দিন।

খরচপাতির হিসাব-নিকাশ

কোথাও খেতে গেলে দু’জনের মধ্যে কে বিল পরিশোধ করেন? খরচপাতির জন্য বাবার ওপর নির্ভর করেন নাকি নিজেই আয় করেন? অনেক বেশি খরচ করেন নাকি হাড়কিপটে? প্রেমিক টাকাপয়সা কিভাবে খরচ করেন তা দেখেও বুঝতে পারবেন তিনি ভবিষ্যতে ভালো স্বামী হবেন কি না।

কাছের মানুষেরা কী ভাবেন

প্রেমে পড়লে পুরো দুনিয়াই দেখতে রঙিন লাগে, তবুও প্রেমকে বলা হয় অন্ধ। আপনি যখন কারো প্রেমে পড়বেন, তখন তার কোনো দুর্বলতাই আপনার চোখে পড়বে না। আপনার কাছের মানুষেরা তার সম্পর্কে কেমন ধারণা রাখে, সেটিও গুরুত্বপূর্ণ। কারণ নিরপেক্ষভাবে তারা আপনাকে কিছু বিষয় বুঝতে সাহায্য করবে। এমন নয়- তারা যা বলবেন সেটিই সত্যি। তবে তাদের কথায় কিছু বিষয় হয়তো বুঝতে পারবেন, যা এর আগে ভালোবাসার মোহে এড়িয়ে গিয়েছেন।

ঝগড়া হলে

ঝগড়া ছাড়া প্রেম যেন পানসে লাগে! সব জুটির ভেতরেই ঝগড়া হয়, মনোমালিন্য হয়। কিন্তু আপনার প্রেমিক এই ঝগড়াকে কিভাবে সামাল দেন সেটিই আসল বিষয়। যদি তিনি ঝগড়ার পরে দীর্ঘ সময় রাগ পুষে রাখেন বা কথা বন্ধ রাখেন তবে অদূর ভবিষ্যতে স্বামী হিসেবে তিনি তেমন একটা সুবিধার হবেন না!

আশাবাদী

জীবন অনিশ্চয়তায় ভরপুর। কখনো উথ্থান, কখনো পতন। কোনো মানুষই নিজের সমস্যার কথা কোন হতাশাবাদীর সঙ্গে ভাগাভাগি করতে চান না। আপনার প্রেমিক কি অল্পতেই ভেঙে পড়েন কিংবা কোনো কঠিন পরিস্থিতিতে আপনাকে একা ছেড়ে দেন? তাহলে তার সঙ্গে গাটছড়া বাঁধার আগে অবশ্যই আরেকবার ভেবে দেখুন।

সম্মান

সম্পর্কে পরস্পরের প্রতি সম্মান থাকা সবচেয়ে জরুরি। প্রেমিক আপনাকে কতটা সম্মান করেন তার ওপর নির্ভর করে কতদিন আপনাদের সম্পর্ক বেঁচে থাকবে।

মনযোগী শ্রোতা

যদি প্রেমিকের সঙ্গে সারাজীবন কাটাতে চান তবে লক্ষ করুন তিনি আপনার কথা শুনতে কতটা আগ্রহী। সারাদিনের ঘটে যাওয়া ঘটনা তিনি আপনার কাছ থেকে কতটা মনযোগ দিয়ে শোনেন? যদি তিনি মনযোগী শ্রোতা হন, তবে নিশ্চিত থাকুন স্বামী হিসেবে ভালো হবেন।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *