Header ad

দাঁত সাদা করে যেসব খাবার

সারাদিনই আমরা নানা রকমের খাবার খেয়ে থাকি। এমন অনেক খাবার আছে, যা আমাদের দাঁতের সাদা রং হরণ করে হলদেটে করে দেয়। এর এজন্য অনেক সময় আমরা আমাদের সুন্দর হাসিটিও লুকিয়ে রাখি। তবে যেসব খাবার দাঁতের সাদা রংকে মলিন করে দেয় সেসব খাবার ত্যাগ করে বরং যেসব খাবারে দাঁতের সাদা রঙ ফিরে আসবে আমরা তা খেতে পারি। আসুন জেনে নেই, কোন খাবারে দাঁতের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পায়।

স্ট্রবেরি
মনে হতে পারে লাল রঙের ফলটি কি করে দাঁত সাদা করতে পারে! পারে, কারণ স্ট্রবেরির মধ্যে আছে ম্যালিক অ্যাসিড। এই অ্যাসিড আপনার দাঁতকে সাদা করে বলে জানিয়েছেন দন্ত চিকিৎসকরা৷

পেঁয়াজ
অনেকেই জানেন না পেঁয়াজ দাঁতের জন্য ভীষণ উপকারী৷ এর মধ্যে আছে অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল এবং অ্যান্টিসেপটিক৷ আর একটি বিষয় হলো পেঁয়াজ স্বচ্ছ৷ তাই এটি খেলে দাঁতে কোন দাগ হয় না৷ চিকিৎসকরা ঠাট্টা করে বলে থাকেন কাঁচা পেঁয়াজ খাওয়ার পর মুখের গন্ধ দূর করতে বেশিরভাগ মানুষ দাঁত মাজেন৷ ফলে দাঁত ঝকঝকে না হয়ে পারে না৷

দুধ
পুষ্টিকর দুধ দাঁতের স্বাস্থ্যের জন্য খুব উপকারী৷ কারণ এতে থাকা ক্যালসিয়াম দাঁতকে শক্তিশালী করে৷ এনামেলে শক্তি বৃদ্ধি করে দাঁতকে সাদা ও উজ্জ্বল করে৷

গাজর
আপেলের মতই কাঁচা গাজর দাঁতের জন্য ভীষণ উপকারী৷ গাজর খেলে দাঁতের ফাঁকে ঢুকে থাকা খাদ্যকণা বেরিয়ে আসে৷ এছাড়া তা দাঁত ও মাড়ির স্বাস্থ্যের জন্য ভালো৷

বাদাম
শক্ত খাবার চিবিয়ে খেলে আপনার দাঁতের ক্ষয় পূরণ হয় এবং দাঁতকে শক্ত করে৷ বিকেলের নাস্তায় আপনি যদি কয়েকটি বাদাম খান, তবে তা আপনার দাঁতকে ঝকঝকে করতে সাহায্য করে৷

পনির
শক্ত পনিরে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম রয়েছে৷ এটি দাঁত ও মাড়িকে শক্তিশালী করে৷ তবে সাদা পনির খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন ডাক্তাররা৷ ফলে দাঁতে কোন দাগ হবে না৷

পানি
বেশি পরিমাণ পানি পান করলে আপনার মুখ পরিষ্কার থাকবে৷ তবে রেড ওয়াইন বা ব্ল্যাক কফি কিন্তু আপনার দাঁতে দাগ তৈরি করবে৷ তাই এগুলো খাবার পর প্রতিবার একবার পানি পান করার পরামর্শ দিয়েছেন ডাক্তাররা৷ আর সোডা মেশানো পানি খুব বেশি না খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন, কারণ এতে এনামেল ক্ষতিগ্রস্ত হয়৷

আপেল
আপেলে কামড় দেয়ার সাথে সাথে একটা বড় ধরনের আওয়াজ হয়৷ এটা কারো জন্য বিরক্তির কারণ হলেও দাঁতের জন্য কিন্তু দারুণ উপকারী৷ এভাবে কামড়ে যেসব খাবার খাওয়া যায় তা মাড়ির জন্য ভীষণ উপকারী৷ এছাড়া আপেল খাওয়ার সময় যে পরিমাণ লালা নিঃসরণ হয় তাতে মুখের মধ্যকার অনেক ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস হয়৷

ব্রকলি
কেউ যদি দিনের বেলা ব্রকলি খায় তাহলে তা দাঁতের গায়ে লেগে থাকে৷ ফলে ব্রাশ করলে খুব ভালোভাবে দাঁত পরিষ্কার হয়৷

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *