Header ad

সিনেমা হলে জাতীয় সংগীতের সময় দাঁড়াতে হবে কেন, প্রশ্ন পবনের

সিনেমা হলে জাতীয় সঙ্গীত শুরু হলে আসন ছেড়ে কেন উঠে দাঁড়াতে হবে? এমনই প্রশ্ন তুলেছেন ভারতের রাজনৈতিক দল জনসেনা নেতা সুপ্রিমো পবন কল্যাণ। শনিবার (৯ মার্চ) অন্ধ্রপ্রদেশের কুর্নুলে যুবাদের একটি অনুষ্ঠানে তিনি এ প্রশ্ন তোলেন।

সিনেমা হলে জাতীয় সংগীত চলাকালে উঠে দাঁড়ানো উচিৎ বলে সুপ্রিম কোর্টের দেয়া নির্দেশনার বিষয়টি উল্লেখ করে দেশের সর্বোচ্চ আদালতের প্রজ্ঞা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি।

পবন কল্যাণ বলেন, সিনেমা হলে ছবি দেখতে গিয়ে জাতীয় সংগীতের সময় উঠে দাঁড়াতে আমার ভালো লাগে না। অবসরের সময় পরিবার, বন্ধুদের সঙ্গে সিনেমা দেখতে গেলেও এখন দেশপ্রেমের পরীক্ষা দিতে হয়। এটা আমার একেবারেই পছন্দ নয়।

এর আগের দিনই বিজেপির বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য করেন পবন। তিনি বলেন, দুই বছর আগে বিজেপি তাকে বলেছিল, ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে একটি যুদ্ধ হতে পারে।

অভিনেতা থেকে রজনীতিক হয়ে ওঠা পবন এটাকে মেকি ব্যবস্থা বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, রাজনৈতিক দলগুলো তাহলে সভা, সমাবেশ, বৈঠক কেন জাতীয় সংগীত দিয়ে শুরু করে না? সেখানে তো দেশপ্রেম দেখানোর ব্যবস্থা নেই। তাহলে সেটা সিনেমা হলে দেখানোর প্রয়োজনটা কোথায়? দেশের শীর্ষ স্তরের প্রত্যেকটি গুরুত্বপূর্ণ দফতরেই তো জাতীয় সংগীত শোনানোর ব্যবস্থা থাকা উচিত। যারা আমাদের আইন শেখাচ্ছেন, তারা নিজেরা কেন সেই পথে হেটে দৃষ্টান্ত তৈরি করছেন না?

২০১৬ সালে হায়দ্রাবাদের একজন আইনজীবী জনসেনা প্রধান পবনের বিরুদ্ধে জাতীয় সংগীতকে অপমানের অভিযোগ করেছিলেন।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *