Header ad

আপনার সম্পর্ক কোন ধরনের ?

সাধারণত সম্পর্ক টিকে থাকে যত্নের ওপর। তবে খুব ব্যস্ত কর্মজীবন, দিনের পর দিন মানসিক চাপ, বিরক্তিকর বা অপছন্দের মন্তব্য সম্পর্কে ফাটল ধরায়।

আপনি কোন ধরনের সম্পর্কের মধ্যে রয়েছেন জানা থাকলে, এটি কেবল একজন আরেকজনকে বুঝতে সাহায্য করে না, পাশাপাশি আবেগকে নিয়ন্ত্রণেও সাহায্য করে। তাই জেনে নিন, প্রচলিত কিছু সম্পর্কের কথা। জীবনধারা বিষয়ক ওয়েবসাইট ফেমিনা প্রকাশ করেছে এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন।

নিয়ন্ত্রণকারী

কখনো কখনো প্রতিযোগিতা ভালো, এটি সম্পর্ককে পরের ধাপে নিতে সাহায্য করে। তবে আপনি সবসময় আপনার সঙ্গীকে তার ক্যারিয়ার, তার ভুল-শুদ্ধ নিয়ে কথা বলতে থাকলে সঙ্গী এক সময় বিরক্ত হয়ে যাবে। এ কারণে সম্পর্কে চির ধরতে পারে। তাই, তুলনা বা অভিযোগ না করে গঠনমূলক আলোচনা করুন।

সক্রিয়

এটি আসলে নির্ভর করে ব্যক্তির আচরণের প্রকৃতির ওপর। তবে যদি আপনার মনে হয়, আপনি সঙ্গীর জন্য সব করছেন, সব দায়িত্ব পালন করছেন তাহলে খুব সক্রিয় ব্যক্তি হয়ে মেজাজ হারানোর চেয়ে সঙ্গীর সঙ্গে আলোচনা করুন এবং কাজ বা দায়িত্ব ভাগ করে নিন।

আক্রমণাত্বক

এটি শক্তি বা ক্ষমতার ওপর নির্ভর করে। এই সম্পর্কের ক্ষেত্রে একজন অপরজনকে কেবল তার দুর্বলতা নিয়ে অভিযোগ করতে থাকে। আক্রমণাত্বক সঙ্গী একটু তর্ক হলেই খুব দ্র্রুত রেগে যায়। আপনার আচরণ এমন হলে দ্রুতই এটি ত্যাগ করুন। না হলে সম্পর্ক হুমকির মধ্যে পড়বে।

সংযোগহীনতা

অনেক সময় কর্ম ব্যস্ততার কারণে হয়তো সঙ্গীর সঙ্গে ভালোভাবে কথা বলা বা সময় কাটানো হয় না। আপনার সম্পর্ক এ রকম হলে একে শিথিল না হতে দিয়ে নিজেদের মধ্যে সময় কাটান।

ভারসাম্যপূর্ণ সম্পর্ক

এটা সেই সম্পর্ক যেখানে সঙ্গী একসঙ্গে কাজ করে এবং সবকিছুর ভারসাম্য রাখে। এখানে সঙ্গী অপরসঙ্গীর দুর্বলতা ও সবলতা বোঝে। এ ধরনের সম্পর্কে উভয় সঙ্গীই তাদের সম্পর্কে ভালো রাখতে চায় এবং একজন আরেকজনের সহযোগী হয়। তাদের মধ্যেও তর্ক হয়, তবে তারা দ্রুত শান্ত হয়ে যায় এবং ভালো ব্যবহার করে। এ ধরনের আদর্শ সম্পর্ক আসলে পাওয়া মুশকিল, তবে হয়তো সবাই এটিই চায়!

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *