Header ad

নতুন ফিডব্যাক, পুরোনো ফিডব্যাক

একবার জ্বলছিল, একবার নিভছিল লাল-নীল বাতিগুলো। বাদ্যের সঙ্গে সংগতি রেখে অমন জ্বলা-নেভাই যেন সেগুলোর দায়িত্ব। সেই আলোয় দেখা যাচ্ছিল গিটারিস্ট লাবু রহমানকে। কাঁচা-পাকা চুলের মানুষটি তেমন বদলাননি। বদলেছে কেবল তাঁর মাথার কালো চুলগুলো। সাদা হয়েছে অনেকটা, বাকি রয়েছে কিছু। তবে আট আঙুলে দুটো কিবোর্ড বাজিয়ে চলা ফোয়াদ নাসের বাবুর মুখে বয়সের ছাপ পড়ে গেছে। দলের বয়স চল্লিশ পেরিয়েছে, কান্ডারিরা কি আর তা এড়াতে পারেন? ফিডব্যাক, গত শতকের সত্তরের দশকের ব্যান্ড। কত ভাঙা-গড়ার ভেতর দিয়ে চার দশক পেরিয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটির রাজদর্শন মিলনায়তনে ছিল ফিডব্যাকের চার দশক পূর্তি কনসার্ট ‘ফোর ডিকেডস অব ফিডব্যাক’। গান শোনায় পুরোনো ফিডব্যাক, নতুন ফিডব্যাক আর ফিডব্যাক ছেড়ে গড়া মাকসুদুল হকের নতুন দল—ঢাকা। অতীতের স্মৃতি মনে করিয়ে দিতে পুরাতন সদস্যদের নিয়ে মঞ্চে এসেছিল ফিডব্যাক। দলটির প্রথম রেকর্ড করা গান ‘একদিন সেই দিন’ গেয়ে শুনিয়েছেন মাকসুদুল হক। সে সময় মঞ্চে ফোয়াদ নাসের বাবু, রোমেল খান, সেলিম হায়দার ও মন্টু। বহুকাল আগের মুমূর্ষু স্মৃতি জাগিয়ে তোলে গানটি। দর্শকসারিতে চোখে পড়ে বয়স্ক অনেককে, আশির দশকে যাঁরা ছিলেন কিশোর বা তরুণ।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *