Header ad

রসুইঘরের বন্ধু তেল

রসুইঘরের কর্তা যেন তেল। যেকোনো কাজে রসুইঘরে যাবেন তেলের চিন্তায় তেল মাথায় তেল দেয়ার অবস্থা হয়। সয়াবিন তেল, সরিষার তেল, সানফ্লাওয়ার তেল, জলপাইয়ের অয়েল তো অনেক দিন ধরেই খাদ্যতালিকায় রাজত্ব করছে। এছাড়াও এমন অনেক তেল রয়েছে, যেমন রাইসব্রান অয়েল, ফ্ল্যাক্সিড অয়েল, আরো অনেক তেল রয়েছে। যার গুণ অনেক। কিন্তু খাবারে বিশেষ ব্যবহার হয় না। এমন তেলও নিয়ে আসতে পারেন রান্নাঘরে। আসুন এমন তেল সম্পর্কে আজ আমরা জেনে নেই।

গ্রেপসিড অয়েল: সতে করতে বা হালকা ভাজতে ব্যবহার করতে পারেন গ্রেপসিড অয়েল। সবজি রোস্ট বা গ্রিল করতেও এই তেল ব্যবহার করা যায়।

এছাড়া চুল ও ত্বকের জন্য এর বিকল্প নেই। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে, রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে, অ্যালঝাইমার্স রুখতে এ তেলের জুড়ি নেই। এই তেলে এমন কিছু অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি পদার্থ আছে, যা ক্যানসারের মতো রোগেরও মোকাবিলা করে।

পাম্পকিন সিড অয়েল: উচ্চ তাপমাত্রায় এই তেল পুড়ে যায়। তেলের গুণও অনেক কমে যায়। তাই স্যালাড ড্রেসিং হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। রোজ ১ চা চামচ করে খেতেও পারেন।

পলিআনস্যাচুরেটেড ফ্যাটে সমৃদ্ধ হওয়ায় কোলেস্টেরল ও রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে। মেটাবলিজ়ম বাড়িয়ে ওজন কমাতেও সাহায্য করে। যে সব মহিলারা মেনোপজ়ের দোরগোড়ায়, তাদের জন্য এই তেল খুবই উপযোগী।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *