Header ad

সিসিমপুর এবার দুরন্ত’র পর্দায়

ছোটদের জনপ্রিয় শিশুতোষ অনুষ্ঠান সিসিমপুর। অন্যদিকে অল্পদিনেই ছোট্ট বন্ধুদের মনে জায়গা করে নেওয়া দুরন্ত টেলিভিশন। দুটো এবার এক হতে যাচ্ছে। এখন থেকে সিসিমপুর দেখা যাবে দুরন্ত টেলিভিশনে।

আগামী ১৪ জুলাই থেকে সপ্তাহে প্রতিদিন তিনবার সিসিমপুর দেখানো হবে দুরন্ত টিভিতে। সকাল সাড়ে ৮টা, দুপুর সাড়ে ১২টা এবং বিকেলে সাড়ে ৫টায় দেখা যাবে অনুষ্ঠানটি। সম্প্রতি রাজধানীতে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানান সিসিমপুরের নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ শাহ আলম।

শাহ আলম জানান, নতুন করে দুরন্ত যুক্ত হওয়ায় সর্বমোট ৩টি টেলিভিশনে দেখা যাবে সিসিমপুর। বাকি দুটি টেলিভিশন হচ্ছে বাংলাদেশ টেলিভিশন ও আরটিভি।

শিশুদের শেখাকে আনন্দদায়ক ও উপভোগ্য করার লক্ষ্য নিয়ে সিসিমপুর টেলিভিশন অনুষ্ঠানটির যাত্রা শুরু হয়েছিল ২০০৫ সালে। চলতি বছরই তা পা দিয়েছে ১৫তম বছরে। ২০২০ সালের পহেলা বৈশাখে পথচলার দেড় যুগ পূর্ণ করবে প্রতিষ্ঠানটি। দেড় যুগ পূর্তি উপলক্ষে বছরব্যাপী নানা আয়োজন থাকছে সিসিমপুরে। তারই অংশ হিসেবে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন সিসিমপুরের নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ শাহ আলম।

অনুষ্ঠানে মোহাম্মদ শাহ আলম সিসিমপুরের ভবিষ্যতের পরিকল্পনাও তুলে ধরেন। তিনি বলেন, সিসিমপুর ইতিমধ্যেই সফলভাবে ১২টি সিজন শেষ করেছে। বর্তমানে জনপ্রিয় এই অনুষ্ঠানটির ১৩ ও ১৪তম সিজনের শুটিং চলছে। প্রচার হওয়া ১২টি সিজনে ৭০০টির মতো পর্ব তৈরি হয়েছে। সিসিমপুর চলে গেছে প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের কাছেও। আর তাই ২০১০ সালে বিবিসি ওয়ার্ল্ড সার্ভিস ট্রাস্ট পরিচালিত একটি জরিপে সিসিমপুর শিশুতোষ অনুষ্ঠান হিসেবে শীর্ষস্থানীয় এবং সামগ্রিকভাবে তৃতীয় জনপ্রিয় অনুষ্ঠান নির্বাচিত হয়।

২০০৭ সালে পরিচালিত এসিপিআর এর একটি দীর্ঘমেয়াদী গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব শিশু সিসিমপুর অনুষ্ঠানটি নিয়মিত দেখে তারা তাদের চাইতে এক বছরের বড় শিশু, যারা সিসিমপুর দেখে না তাদের চেয়ে ভাষা ও বর্ণ, গণিত এবং সামাজিক-সাংস্কৃতিক বিষয়ে বেশি দক্ষতা প্রদর্শন করেছে।

অনুষ্ঠানে শাহ আলম আরও জানান, ইকরি, হালুম, শিকু, টুকটুকির মতো আগামীতে জুলিয়া নামে নতুন একটি চরিত্র যুক্ত হবে সিসিমপুরের বহরে।

অনুষ্ঠানে সিসিমপুরের জনপ্রিয় চরিত্র ইকরি, টুকটুকি, হালুম এবং শিকুও উপস্থিত ছিল।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *