Header ad

চোখের সৌন্দর্যে ৭ টিপস

চোখের সৌন্দর্যে ৭ টিপস

মনের কথা তো চোখেই প্রকাশ পায়। তাইতো গানের ভাষায় বলা হয়- ‘চোখ যে মনের কথা বলে, চোখের সেই ভাষা বুঝতে হলে মনের মতো মন থাকা চাই’। মানুষের সৌন্দর্যের আধার হচ্ছে চোখ। চোখেই লুকোনো থাকে, হাসি-কান্না, প্রেম-বিরহ-ভালোবাসা। কিন্তু এই চোখের যত্ন কিভাবে নিতে হবে সে সম্পর্কে আমরা অনেকেই অজ্ঞ। চলুন চোখের সৌন্দর্য বৃদ্ধির ৭টি টিপস জেনে নিই-

১. যারা হুডেড আই’র অধিকারিণী তারা আই মেকআর করার প্রথমে হাতের সাহায্যে চোখের ক্রিজ লাইনটা খুঁজে বের করবেন। এর পর মিডিয়াম ব্রাউন আইশ্যাডো দিয়ে ন্যাচারাল ক্রিজের একটু উপরে লাগিয়ে ব্লেন্ড করে ক্রিজটা ডিফাইন করবেন। তাতে ফেইক ক্রিজ তৈরি হবে এবং তা ভালোভাবে ফুটে উঠবে।

২. আইশ্যাডো ও আইলাইনার অ্যাপ্লাই করার সময় চোখটা আধা খোলা রাখুন। তাতে চোখের ক্রিজ ও আইলিড ভালোভাবে বোঝা যাবে।

৩. নরমাল আই হলে মেকআপের মেইন আইশ্যাডোটি ক্রিজের নিচের দিকে অ্যাপ্লাই করুন। যদি হুডেড আই হয় তবে মেইন আইশ্যাডোটি আপনার ন্যাচারাল ক্রিজের একটু উপরে লাগাবেন। তাতে আইলিড বড় ও ওপেন হবে।

৪. যারা হুডেড আই এর অধিকারিণী তারা নরমাল আই মেকআপ, স্মোকি আই মেকআপ না করে কাট ক্রিজ, হাফ কাট ক্রিজ স্টাইলগুলো ট্রাই করতে পারেন।

৫. আইলিডে সবসময় শিমারি/মেটালিক হালকা কালার যেমন- গোল্ডেন, শ্যাম্পেইন, রোজ গোল্ড কিংবা সিলভার ব্যবহার করতে পারেন। তাতে চোখ হবে আরও মোহনীয় আকর্ষণীয়।

৬. চোখের সাজে উইংড হতে পারে আপনার বেস্ট ফ্রেন্ড। টানা লাইনার লাগানোর ফলে চোখ অনেকবেশি অপেন মনে হবে। তবে লাইনটা চিকন হলে সবচেয়ে বেশি ভালো লাগবে।

৭. গ্ল্যামারাস মেকআপের সঙ্গে ফেইক আইল্যাশ পড়া হয় অনেকক্ষেত্রেই। কিন্তু হুডেড আই হলে বেশি ঘন ও লম্বা ফেইক আইল্যাশ করবেন না। তাতে পুরো চোখটাই ঢেকে যাবে আইল্যাশে। পাতলা আইল্যাশই বেস্ট।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *