Header ad

সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাকাউন্ট কিভাবে নিরাপদ রাখবেন

বর্তমান সময়ে আমরা প্রযুক্তির দিক দিয়ে অনেক বেশি এগিয়ে গিয়েছি। এই প্রযুক্তির সাহায্যে আমরা সোশ্যাল মিডিয়াতে অনেক বেশি একটিভ হয়েছি। এখন সোশ্যাল মিডিয়াতে অ্যাকাউন্ট নেই এমন লোক খুঁজে পাওয়া কঠিন। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমাদের এতো সম্পৃক্ততা থাকার পরেও কয়জন আমরা সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট নিয়ে সচেতন সে প্রশ্ন মনে রয়েই যায়।

এখনকার সময়ে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীদের সবচেয়ে বড় দুশ্চিন্তার নাম অ্যাকাউন্ট হ্যাক। সম্প্রতি এই অ্যাকাউন্ট হ্যাক করেই আমাদের দেশে কিছু বড় বড় সহিংস ঘটনা ঘটেছে। কিছু দিন আগেও ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে নবী (সা.) কে বিরুপ মন্তব্য করায় ভোলায় বোরহানউদ্দিনে পুলিশের সাথে সংঘর্ষে ৪জন মারা যায়। এমন সমস্যা শুধু মাত্র আমাদের বাংলাদেশেই নয়। এই সমস্যা পুরো বিশ্ব জুড়ে চরম আকার ধারণ করেছে।

তাহলে এখন প্রশ্ন উঠছে এ থেকে মুক্তির উপায় কি? – সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নিয়ে যারা কাজ করেন তারা কিছু উপায় বলেছেন যেন আপনি বুঝতে পারেন আপনার অ্যাকাউন্টটি হ্যাক  হয়েছে কিনা এবং হ্যাক হলে পরবর্তী করনীয় কি। আপনি আপনার পাসওয়ার্ড দিয়ে যদি আপনার অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করতে না পারেন তাহলে বুঝবেন আপনার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে আপনি পুলিশের সাহায্য নিতে পারেন। বর্তমান সময়ে আইসিটি আইন আগের সব সময়ের চেয়ে অনেক বেশি কার্যকর করা হয়েছে। সুতরাং থানায় গিয়ে আপনি আপনার  অ্যাকাউন্টের অনিরাপত্তার জন্য জিডি করতে পারেন। অথবা আপনি যদি দেখেন আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে কোন অপ্রীতিকর পোস্ট শেয়ার হয়েছে তাহলে আপনি আপনার কোনো ঘনিষ্ঠ কারও অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে আপনি সবাইকে জানান দিতে পারেন আপনার অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, একটা “প্রোগ্রাম ইঞ্জিনিয়ারিং” ব্যবহার করে হ্যাকাররা আইডি হ্যাক করে থাকে। এর মাধ্যমে কোনো পরিচিত বা ঘনিষ্ঠ অ্যাকাউন্ট থেকে আপনার কাছে একটি লিঙ্ক পাঠানো হবে। তখন কিছু না বুঝে যদি আপনি লিঙ্কে ক্লিক করেন তাহলে আপনার অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়ে যাবে। তবে এরকম প্রতারণা থেকে মুক্তি পেতে হলে নিজেকে সচেতন করতে হবে সবার প্রথমে। আপনি লিঙ্কটিতে ক্লিক করার আগে যদি আপনার যে ঘনিষ্ঠের কাছ থেকে লিঙ্ক এসেছে তাকে ফোন দিয়ে জেনে নিন তাহলে আপনি এরকম প্রতারণার হাত থেকে মুক্তি পাবেন। বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কর্মকর্তারা অ্যাকাউন্ট নিরাপত্তার জন্য “টু স্টেপ ভেরিফিকেসন” পদ্ধতি চালু করেছেন। আপনি যদি আপনার  অ্যাকাউন্টে এ পদ্ধতিটি চালু করেন তাহলে অন্য কেউ আপনার অ্যাকাউন্টে অবৈধভাবে প্রবেশ করতে চাইলে আপনার ফোনে একটি কোড আসবে। এই কোড দেয়া ছাড়া কেউ আপনার অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করতে পারবে না। তবে যত নিরাপত্তা ব্যবস্থাই থাকুক না কেন, আপনার অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তার জন্য সবার প্রথম আপনাকেই সচেতন হতে হবে।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *