Header ad

জুনুন উন্মাদনায় শেষ হলো ফোক ফেস্ট

ফোক ফেস্টের শেষদিনের সর্বশেষ পরিবেশনার জন্য মঞ্চে ওঠে পাকিস্তানের জনপ্রিয় ব্যান্ডদল জুনুন। জুনুনের সদস্যরা একে একে মঞ্চে উঠতেই চারিদিকে শুরু হয় তুমুল হর্ষধ্বনি৷

সাইওনি… গাইতেই এই গানের সুরের সঙ্গে দুলে ওঠে পুরো আর্মি স্টেডিয়াম। ‘সিতারোছে’, ‘তুহি মেরা মওলা শাহী’, ‘মাট্টি মে মিল যায়েঙ্গে ভুলো না, তেরি জিন্দেগি, ইয়ার মেরা দিল নেহি লাগতা ‘সহ একাধিক গান হায় বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয় ব্যান্ডদলটি। জুনুনের সঙ্গে মেতে ওঠে এদিন আর্মি স্টেডিয়ামে সমবেত হওয়া লক্ষাধিক সঙ্গীতপ্রেমী মানুষ।

রাত ১২টায় সাঙ্গ হয় এ বছরের ফোক ফেস্টের আয়োজন।

শেষরাতের ফোক ফেস্টের আয়োজন জমে ওঠে। এদিন তৃতীয় শিল্পী হিসেবে মঞ্চে ওঠেন জনপ্রিয় ভাওয়াইয়া কণ্ঠশিল্পী চন্দনা মজুমদার।

যাও পাখি বলো তারে যখন শেষ গান কণ্ঠে ধরেন, পুরো স্টেডিয়াম সেই সুরের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে। আর্মি স্টেডিয়ামের দর্শক-শ্রোতা মেতে ওঠে সুর লহরীতে।

শেষ দিন শনিবার সরকারি, সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় উৎসবে ঢল না‌মে শ্রোতা-দর্শকের।

দেশের লোকগান বিশ্ব দরবারে ছড়িয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে সান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ২০১৫ সাল থেকে প্রতি বছর আয়োজিত হয়ে আসছে এশিয়ার সবচেয়ে বড় লোকসংগীতের উৎসব। পঞ্চম আসরের পর্দা উঠেছে ১৪ নভেম্বর।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *