Header ad

বানিয়ে ফেলুন মজাদার মচমচে বাঁধাকপির রোল

বাজারে এখন শীতকালের সবজি বাঁধাকপি। নানা পদে ব্যবহার হয় এটি। রোজ রোজ একঘেয়েমি খাবার খেতে ভালো লাগছে না, মুখরোচর কিছু খেতে ইচ্ছে করছে? তাহলে পুষ্টিগুণে ভরপুর বাঁধাকপি দিয়ে আপনি তৈরি করতে পারেন মজাদার মচমচে বাঁধাকপির রোল।

আসুন জেনে নেই কিভাবে আপনি মজাদার মচমচে বাঁধাকপির রোল তৈরি করবেন।

উপকরণ
বাঁধাকপি ১টি, ভাজার জন্য তেল।

পুর তৈরির উপকরণ
সয়াবিন তেল ৩ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি ১/৩ কাপ, কাঁচামরিচ কুচি স্বাদ মতো, ক্যাপসিকাম আধা কাপ, টমেটো ১টি (কুচি), ভাজা জিরার গুঁড়া ১/৪ চা চামচ, গরম মসলার গুঁড়া ১/৪ চা চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া ১/৪ চা চামচ, সেদ্ধ আলু ভর্তা ১ কাফ, লবণ স্বাদ মতো ও ধনেপাতা কুচি ৩ টেবিল চামচ।

ব্যাটার তৈরির উপকরণ
বেসন ১ কাপ, চালের গুঁড়া ২ চা চামচ, ধনিয়ার গুঁড়া ১ চা চামচ, জিয়ার গুঁড়া ১ চা চামচ, হলুদের গুঁড়া আধা চা চামচ, মরিচের গুঁড়া স্বাদ মতো, বেকিং পাউডার আধা চা চামচ ও পরিমাণ মতো লবণ।

যেভাবে তৈরি করবেন
পুর তৈরির জন্য প্যানে তেল নিন। পেঁয়াজ কুচি, মরিচ কুচি, ক্যাপসিকাম কুচি, টমেটো কুচি, ভাজা জিরার গুঁড়া, গরম মসলার গুঁড়া ও গোলমরিচের গুঁড়া দিয়ে নাড়তে থাকুন। সবচি সামান্য নরম হয়ে আসলে সেদ্ধ আলু চটকে দিয়ে দিন। ৪ থেকে ৫ মনিট নেড়ে লবণ ও ধনেপাতা কুচি দিন। কয়েক মিনিটি পর নামিয়ে রাখুন পুর।

ব্যাটার তৈরির সব শুকনো উপকরণগুলো মিশিয়য়ে অল্প অল্প করে পানি দিন। খুব বেশি ঘন বা পাতলা হবে না মিশ্রণ। প্রথমে বাঁধাকপির ভেতরের শক্ত অংশ যতটুকু সম্ভব ছুরি দিয়ে সরিয়ে নিন। এবার একটি একটি করে আস্ত পাতা আলাদা করে রাখুন। পাতার পেছনের শক্ত অংশ সাবধানে কেটে সরিয়ে ফেলুন।

চুলায় হাঁড়িতে পর্যাপ্ত পানি ও স্বাদ মতো লবণ একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। পানি ফুটে উঠলে বাঁধাকপির পাতা দিন। একবারে সব দেয়ার প্রয়োজন নেই। কয়েকটি দিন। ১৫ সেকেন্ড পর উঠিয়ে নিন। এভাবে সবগুলো পাতা সেদ্ধ করে নিন। এবার তৈরি করে রাখা পুর পাতার একপাশে রেখে জড়িয়ে নিন রোলের মতো কর। বেসনের গোলায় ডুবিয়ে নিন ভালে করে। সময় নিয়ে গরম তেলে মচমচে করে ভেজে তুলুন বাঁধাকপির রোল। পরিবেশন করুন টমেটো সসের সঙ্গে।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *