Header ad

ভয়ংকর

অ্যাসিড হামলা। সৌন্দর্য এক নিমেষে ম্লান। মুখের ৭০ শতাংশ ঝলসে দিয়েছে। চেহারা দেখলে বাচ্চারা আঁতকে ওঠে। চিৎকার জুড়ে দেয়।
পাড়া-প্রতিবেশী তো দূরের কথা, নিজের মা-বাবার কাছেও যে চেহারা বিরক্তির কারণ হয়ে ওঠে। এমনকি আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে নিজের মুখ দেখে নিজেই আঁতকে ওঠে সে! ‘ছপাক’র ট্রেলারে এমন এক দীপিকা পাড়ুকোন দেখা গেছে।
অ্যাসিড আক্রান্ত যোদ্ধা লক্ষ্মী আগরওয়ালের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন দীপিকা। ‘ছপাক’-এ দীপিকার চরিত্রের নাম মালতি। তার স্বামী অমলের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন ‘মির্জাপুর’ খ্যাত অভিনেতা বিক্রান্ত মাসে। ২০০৫ সালের অ্যাসিড আক্রান্ত লক্ষ্মী আগরওয়ালের জীবনকাহিনি অবলম্বনেই তৈরি হয়েছে এই ছবিটি।
লক্ষ্মীর চরিত্রে অভিনয় করতে গিয়ে কম কাঠখড় পোহাতে হয়নি দীপিকাকে। ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, শুটিং ফ্লোরে নামার আগে দীপিকার হোমওয়ার্কও ছিল বেশ পোক্ত। সিডি, পেনড্রাইভে যত রেফারেন্স দেয়া হয়েছিল তাকে এই চরিত্রের জন্য সবকটা সময় নিয়ে দেখেছেন এবং একজন অ্যাসিড আক্রান্তের জীবনের যে কঠিন বাস্তব, তাদের রোজকার যে জীবনযুদ্ধ সেটার সঙ্গে নিজেকে একাত্ম করার চেষ্টা করেছেন তিনি। যাতে পর্দায় সেই কঠিন যন্ত্রণাটা ফুটিয়ে তুলতে পারেন।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *